ইমরানের পদত্যাগের আগে ফিরব না – মাওলানা ফজলুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৪ নভেম্বর ২০১৯, ২:০৫ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 82 বার
ইমরানের পদত্যাগের আগে ফিরব না – মাওলানা ফজলুর রহমান

সময়েরদিগন্ত.কম ॥ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে পদত্যাগে দুই দিনের বেঁধে সময়সীমা রবিবার রাতে পার হয়েছে। তবু জমিয়তে উলেমা-ই-ইসলামের নেতৃত্বে অবস্থান কর্মসূচি চলমান রয়েছে। দলটির নেতা মাওলানা ফজলুর রহমান বলেছেন, অবস্থান চলবে। সরকারের পদত্যাগ ছাড়া ফেরার কোনও উপায় নেই। সোমবার দেশটির সংবাদমাধ্যম দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন এখবর জানিয়েছে। অর্থনৈতিক দুর্ভোগের অভিযোগে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পদত্যাগের দাবিতে এ বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে দেশটির প্রভাবশালী ইসলামপন্থী রাজনৈতিক দল জমিয়তে উলেমা-ই-ইসলাম। দলটির প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে রাজধানী ইসলামাবাদে ‘আজাদি মার্চে’ অংশ নিচ্ছেন হাজার হাজার বিক্ষোভকারী। পরে আন্দোলনে দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের অনুসারীসহ অন্যান্য সমমনা ধর্মীয় দলগুলোও অংশ নিয়েছে। কয়েকশ’ গাড়ি নিয়ে গত রবিবার এ বিক্ষোভ শুরু হয়। সরকার অনুমোদিত উন্মুক্ত স্থানে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে অবস্থান নিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। এখানে দলীয় পতাকা নাড়িয়ে স্লোগান দিচ্ছেন তারা। ইমরান খানকে পদত্যাগের জন্য রবিবার (৩ নভেম্বর) পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। শনিবার (২ নভেম্বর) ফজলুর রহমান আলটিমেটাম দিয়েছিলেন, রবিবারের মধ্যে ইমরান পদত্যাগ না করলে বিক্ষোভকারীদের নিয়ে তিনি রেড জোনে প্রবেশ করবেন। কোনও চাপেই তিনি নতি স্বীকার করবেন না। তবে রবিবার মধ্যরাতে সময়সীমা পার হয়ে গেলেও অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হয়নি। বিরোধী রাজনীতিক নেতারা পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করার আগ পর্যন্ত অবস্থান চলবে বলে জানানো হয়েছে। ৬৬ বছরের মাওলানা ফজলুর রহমান বলেন, আমাদের অবস্থান সঠিক। পিছু হটে যাওয়া পাপ হবে এবং পিছু হটার উপায় নেই। এটিই আমাদের প্রথম পরিকল্পনা, আমাদের দ্বিতীয় ও তৃতীয় পরিকল্পনা রয়েছে। জমিয়ত নেতা বলেন, আমাদের দাবি মেনে না নেওয়া পর্যন্ত আমরা সরব না। এই জনসমুদ্র এখানেই থেমে যাবে না। আগামীতে আমরা পুরো দেশ অচল করে দেব। সরকারের পদত্যাগ ছাড়া আমরা কিছুতেই ফিরে যাব না। তবে মাওলানা বিক্ষোভ শান্তিপূর্ণ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন এবং রাজধানীর ডি-চক এলাকায় প্রবেশের চেষ্টার কোনও ইঙ্গিত দেননি। তিনি বলেন, ডি-চক এলাকায় জায়গা বেশি নেই। এমনকি এই উন্মুক্ত স্থানেও সবার স্থান সংকুলানে কষ্ট হচ্ছে। তবে আমরা যদি সিদ্ধান্ত নেই প্রধানমন্ত্রীর বাস ভবনে প্রবেশ করবো তাহলে কেউ ঠেকাতে পারবে না। আমরা এখানে করতে বা মরতে এসেছি। রবিবার মধ্যরাতে আলটিমেটামের সময়সীমা শেষ হয়ে যাওয়াতে সোমবার সর্বদলীয় নেতাদের বৈঠক ডেকেছে জমিয়ত। বৈঠকে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচি ঠিক করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করে দৈনিক সময়ের দিগন্তের সাথে থাকুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 3 =