একই প্রশ্নপত্র দিয়ে দুইবার পরিক্ষার ঘটনায় ইবি’র ইংরেজি বিভাগের দুই শিক্ষকের শাস্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৫:৫০ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 90 বার
একই প্রশ্নপত্র দিয়ে দুইবার পরিক্ষার ঘটনায় ইবি’র ইংরেজি বিভাগের দুই শিক্ষকের শাস্তি

সময়েরদিগন্ত.কম ॥ একই প্রশ্নপত্র দিয়ে টানা দুইবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ইংরেজি বিভাগের অনার্স তৃতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরিক্ষা গ্রহণ করাই সাজা দেওয়া হয়েছে দুই শিক্ষককে। গত শনিবার বিভাগীয় একাডেমিক সভা শেষে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বিভাগীয় সূত্রে, ইংরেজী বিভাগের পরিক্ষা কমিটির সভাপতি ড. মোহাম্মদ আজগর হোসেনকে এক বছরের জন্য পরিক্ষার সকল প্রকার কার্যকর থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। কোর্স শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক সাজ্জাদ হোসনে জাহিদ কে দুই বছরের জন্য কোর্সেটির ক্লাস না নেওয়ার জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। একই সাথে পরিক্ষাটি বাতিল করা হয়। গত ৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ৩০৫ নং কোর্স (ইলিজাবেথ এন্ড জ্যাকোবিয়ান ড্রামা) পরিক্ষার সাথে ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্রের মিল পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। এতে ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একই কোর্সের ২,৩, ও ৬নং এর সি ব্যতিত সকল প্রশ্ন মিল রাখা হয়। তবে ২, ৩ নং প্রশ্নের মূল প্রশ্ন পরিবর্তন করা হলেও বিকল্প প্রশ্ন দুটির কোন পরিবর্তন করা হয়নি। এছাড়াও ৬ নং প্রশ্নের ৮ টি ব্যাখার মধ্যে ৪ টি উত্তর করতে বলা হয়। এতে সকল প্রশ্ন যথার্থ্য স্থানে মিল রেখে শুধুমাত্র সি নং প্রশ্নটি পরিবর্তন করা হয়েছে। এতে শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এতে নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক শিক্ষার্থীরা বলেন, ২০১৮ সালের প্রশ্ন দিয়েই ২০১৯ সলে আমাদের পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। এই কোর্সের প্রশ্ন আগে থেকে কিছু শিক্ষার্থীদেরকে দেওয়া হয় বলে তারা মন্তব্য করেন। একই সাথে পরিক্ষা কমিটির সভাপতি ড. মোহাম্মদ আজগর সোহেনের নামে মেয়ে শিক্ষার্থীদের কে হয়রানি করার অভিযোগও রয়েছে। উল্লেখ্য, পরীক্ষা কমিটির সভাপতি ও ৩০৫ নং কোর্স শিক্ষক হিসেবে নতুন শিক্ষককে ঐ পদে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোছাঃ ছালমা সুলতানার কাছে দায়িত্ব প্রাপ্ত ব্যাক্তিদের নাম জানতে চাইলে তিনি বলেন বিষয়টি আমাদের বিভাগীয় সিদ্ধান্ত এ বিষয়ে আপাতত কিছু বলা যাবে না। বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড মোছাঃ ছালমা সুলতানা বলেন, ‘আমরা বিভাগীয় সভায় এ পরিক্ষাটি বাতিল করেছি। পরিক্ষা কমিটির নতুন সভাপতির দায়িত্ব কাকে দেওয়া হবে সেটিও নির্ধারণ করেছি।

সংবাদটি শেয়ার করে দৈনিক সময়ের দিগন্তের সাথে থাকুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × two =