কুষ্টিয়ার ছয় উপজেলায় পালিত হয়েছে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস

কুষ্টিয়াবাসীকে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনে অবগত করতে হবে: ডিসি সাইদুল ইসলাম

অথর
সময়েরদিগন্ত.কম:   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৬ অক্টোবর ২০২১, ৫:২৫ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 39 বার
কুষ্টিয়াবাসীকে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনে অবগত করতে হবে: ডিসি সাইদুল ইসলাম

সাধারণ মানুষকে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনে উৎসাহী করার লক্ষ্যে দেশে প্রথমবারের মতো পালিত হয়েছে ‘জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস’। গত ৯ আগস্ট মন্ত্রিসভা বৈঠকে ৬ অক্টোবর দিনটি ‘জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস’ ঘোষণা করে সরকার। 

দিবসটি উপলক্ষ্যে সারা দেশের ন্যায় “সবার জন্য প্রয়োজন, জন্ম ও মৃত্যু পরপরই নিবন্ধন” এই স্লোগানকে সামনে রেখে, কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের আয়োজনে প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভার মাধ্যমে এই দিবস পালন করা হয়। এছাড়াও বুধবার (৬ অক্টোবর) কুষ্টিয়ার সকল উপজেলায় পালিত হয়েছে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস।

এদিকে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কুষ্টিয়া স্থানীয় সরকার শাখার উপপরিচালক মৃনাল কান্তি দে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষা অফিসার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বৃন্দ, পৌর মেয়র/ প্রতিনিধি বৃন্দ, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগন, ও ইউনিয়ন সচিব সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ।

আলোচনা সভায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, এসডিজির লক্ষ্যমাত্রায় রয়েছে, ২০৩০ সালের মধ্যে আমাদের ৮০ শতাংশ জন্ম এবং মৃত্যু নিবন্ধন সম্পূর্ণ করতে হবে। এসডিজির টার্গেট অনুযায়ী কুষ্টিয়া জেলার সকলকে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের আওতায় আনার লক্ষ্যে আমাদের কাজ করতে হবে। পৌর এলাকার কাউন্সিল ও ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বর সহ গ্রামপুলিশদের জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন সনদ প্রদানের দায়িত্ব অর্পণ করার আহব্বান করেন তিনি।

এসময় অনুষ্ঠানের সভাপতি মৃনাল কান্তি দে উল্লেখ্য করে বলেন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪ এর ৮ ধারা অনুযায়ী শিশু জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে নিবন্ধন, কোনো ব্যক্তির মৃত্যুর ৪৫ দিনের মধ্যে মৃত্যু নিবন্ধন করতে হবে। এটাকা কার্যকরী করার জন্য এই দিবসটি পালন করা হচ্ছে। ‘সবার জন্য প্রয়োজন, জন্ম ও মৃত্যুর পরপরই নিবন্ধন’, যা সময়োপযোগী ও অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। জন্ম বা মৃত্যুর ৪৫ দিন পর্যন্ত বিনামূল্যে নিবন্ধন দেওয়া হয়। বিষয়টি সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 14 =