দু্ই দফা দাবিতে ইবিতে ভর্তিচ্ছুদের অবস্থান কর্মসূচি

অথর
সময়ের দিগন্ত ডেক্স :   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:২৭ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 110 বার
দু্ই দফা দাবিতে ইবিতে ভর্তিচ্ছুদের অবস্থান কর্মসূচি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় বিভাগ পরিবর্তন এবং গুচ্ছ সিলেকশন বাতিলের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। দাবি অনাদায়ে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারিও দেন তারা।

আজ সোমবার দুপুর ১২ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তাদের হাতে ‘বিভাগ পরিবর্তন ইউনিট চাই’, ‘গুচ্ছ সিলেকশন বাতিল চাই’ সম্বলিত ফেস্টুন দেখা যায়।

কর্মসূচিতে রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থী জাকিরুল ইসলাম, ঝিনাইদহের দুঃখী মোহাম্মদ কলেজ শিক্ষার্থী অঙ্কুর খন্দকার, রানা আহমেদ, রাজশাহীর বরেন্দ্র কলেজ শিক্ষার্থী মেসবাউল ইসলাম, কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজ শিক্ষার্থী রোকনুজ্জামান, ঝিনাইদহের কেসি কলেজ শিক্ষার্থী সুলাইমান হোসেসহ বিভিন্ন কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করা শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

কর্মসূচি পালনকালে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমরা গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আয়োজনকে সাধুবাদ জানাই। তবে বিভাগ পরিবর্তন বন্ধ এবং সিলেকশন পদ্ধতি হটকারী সিদ্ধান্ত বলে আমরা মনে করি। সেকেন্ড টাইমাররা দেড় বছর বিভাগ পরিবর্তনের প্রস্তুতি নিয়ে আসছে। তারা বেশি বিপাকে পড়ছে। হুট করে বিজ্ঞানের সাবজেক্টে প্রস্তুতি নেওয়া অসম্ভব। এছাড়া গুচ্ছ পরীক্ষায় সিলেকশন পদ্ধতির জন্য অনেক শিক্ষার্থী পরীক্ষা অংশ নেওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।’

শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘চান্স পাওয়া পরের কথা, আমরা পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ চাই। পরীক্ষা নিয়ে আমাদের মোধা যাচাই করা হোক। পরীক্ষা দেওয়ার কথা প্রায় ১৮ লাখ, সেখানে ৪ লাখ সুযোগ পাচ্ছি। এটা সত্যিই হতাশাজনক। যেসময় আমাদের পড়ার টেবিলে থাকার কথা সেসময় আমরা রাস্তায় দাঁড়িয়েছি।’

দাবি অনাদায়ে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে তারা আরো বলেন, ‘ঢাকায় অবস্থানরত শিক্ষার্থীর ইউজিসি বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে। সেখানকার সচিব আমাদের আশ্বস্ত করলেও যথাযথ সাড়া পাইনি। আমাদের দাবির বিষয়টি বিবেচনায় এনে কর্তৃপক্ষ মেনে নিবেন বলে আশা করি। আমরা মাঠে নেমেছি, দাবি আদায় করেই ছাড়বো। এজন্য আমরা আমরন অনশনসহ যেকোন পদক্ষেপ গ্রহণে প্রস্তুত।’

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


আরও পড়ুন